ঢাকা ০৭:৫৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাংনীতে স্ত্রীর উপরে অভিমানে বিষপানকারি স্বামী মারা গেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় : ০৭:১৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ মে ২০২৩ ১৪৯ বার পড়া হয়েছে

শশুর বাড়িতে বউ আনতে গিয়ে অপমানিত সেই যুবক রাইহান আলী মারা গেছেন। শুক্রবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

পারিবারিক সূত্রের বরাত দিয়ে গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজজাক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। রাইহান আলী গাংনী উপজেলার তেরাইল গ্রামের বাগানপাড়া এলাকার মহিবুল ইসলামের ছেলে।

গতকাল শুক্রবার (১২ মে) দুপুরের দিকে তেরাইল গ্রামের কোদালকাটি মাঠ নামক স্থান থেকে বিষপান করা মূমূর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেকে্্র নেওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক। শশুর বাড়ির লোকজনের অপমান সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেন রাইহান আলী (১৮)।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রতিবেশীরা জানান, তার স্ত্রীর সাথে বেশ কিছুদিন যাবৎ কলহ চলছিল। কয়েকদিন আগে তার স্ত্রী রুমিয়া খাতুন পিতার বাড়িতে চলে যায়। গত বৃহস্পতিবার ব্উ আনতে শশুর বাড়ি বাদিয়াপাড়া গ্রামে যান রাইহান। শশুরবাড়ি গেলে তার বউ ভাত খাবেনা বলে জানিয়ে দেন। এছাড়া শশুর বাড়ির লোকজন অপমান করে তাড়িয়ে দেন।

এঘটনায় ক্ষোভে হতাশা আর অভিমানে গতকাল শুক্রবার দুপুরের দিকে ওই মাঠে গিয়ে বিষপান করে। তাকে মূমূর্ষ অবস্থায় মাঠে পড়ে থাকতে দেখে মাঠের লোকজন উদ্ধার করে বাড়িতে নেন। পরে বাড়ির লোকজন তাকে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেকে্্র ভর্তি করে। সেখান থেকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে রাতে তার মৃত্যু হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

গাংনীতে স্ত্রীর উপরে অভিমানে বিষপানকারি স্বামী মারা গেছেন

আপডেট সময় : ০৭:১৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ মে ২০২৩

শশুর বাড়িতে বউ আনতে গিয়ে অপমানিত সেই যুবক রাইহান আলী মারা গেছেন। শুক্রবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

পারিবারিক সূত্রের বরাত দিয়ে গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজজাক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। রাইহান আলী গাংনী উপজেলার তেরাইল গ্রামের বাগানপাড়া এলাকার মহিবুল ইসলামের ছেলে।

গতকাল শুক্রবার (১২ মে) দুপুরের দিকে তেরাইল গ্রামের কোদালকাটি মাঠ নামক স্থান থেকে বিষপান করা মূমূর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেকে্্র নেওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক। শশুর বাড়ির লোকজনের অপমান সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেন রাইহান আলী (১৮)।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রতিবেশীরা জানান, তার স্ত্রীর সাথে বেশ কিছুদিন যাবৎ কলহ চলছিল। কয়েকদিন আগে তার স্ত্রী রুমিয়া খাতুন পিতার বাড়িতে চলে যায়। গত বৃহস্পতিবার ব্উ আনতে শশুর বাড়ি বাদিয়াপাড়া গ্রামে যান রাইহান। শশুরবাড়ি গেলে তার বউ ভাত খাবেনা বলে জানিয়ে দেন। এছাড়া শশুর বাড়ির লোকজন অপমান করে তাড়িয়ে দেন।

এঘটনায় ক্ষোভে হতাশা আর অভিমানে গতকাল শুক্রবার দুপুরের দিকে ওই মাঠে গিয়ে বিষপান করে। তাকে মূমূর্ষ অবস্থায় মাঠে পড়ে থাকতে দেখে মাঠের লোকজন উদ্ধার করে বাড়িতে নেন। পরে বাড়ির লোকজন তাকে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেকে্্র ভর্তি করে। সেখান থেকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে রাতে তার মৃত্যু হয়।