ঢাকা ০৭:৩৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দিনে-দুপুরে পাখি ভ্যান চুরি : দিশেহারা শিশু ভ্যান চালক

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৪:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুলাই ২০২৩ ৪১২ বার পড়া হয়েছে
চুয়াডাঙ্গায় রেল বাজার হতে দিনে-দুপুরে ভ্যান চালককে প্রতারণা করে চুরি করে নিয়েছে আয়ের শেষ সম্বল পাখি ভ্যান।

আজ শনিবার সকাল নয়টার সময় চুয়াডাঙ্গার রেল বাজারে এ ঘটনা ঘটে। পাখি ভ্যান চুরি হওয়াই কান্নায় ভেঙে পড়ে চুয়াডাঙ্গার ভ্যান চালক শিশু ইব্রাহিম।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার শ্রিকোল বোয়ালিয়া দিনমজুর শাহাজাহান আলির ছেলে শিশু ইব্রাহিম। শিশু ইব্রাহীমের বাবা অসুস্থ থাকার কারণে ইব্রাহিম শনিবার ভ্যান নিয়ে বাহির হয় কিছু টাকার আশায়। সংসারের অভাবে কারণে ইব্রাহিমের বাবা শাহাজান আলী ৩০ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে পাখি ভ্যান ক্রয় করে। গত কয়েক মাস আগে পাখি ভ্যান কিনে ইব্রাহিমের বাবা।

সে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ৫ থেকে ৭ শত টাকা আয় করে পরিবারের অভাব ঘুচাত পরিবারের শেষ সম্বল এই পাখি ভ্যান।

আজ শনিবার সকাল ৯টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদরের ডিঙ্গেদহ বাজারে এজেন্ট ব্যাংকিং সেবা ইসলামিক ব্যাংকের সামনে থেকে উঠে বসুভান্ডারদহ ও পরে রেল বাজার যাওয়ার জন্য ২ জন অজ্ঞাত ব্যক্তি ভাড়া হিসেবে ৩ শত টাকা চুক্তি করে।

ভ্যান চালক শিশু ইব্রাহীম ডিঙ্গেদহ থেকে হয়ে সকাল সাড়ে দশটার দিকে চুয়াডাঙ্গা রেল বাজারে পৌঁছালে প্যাসেঞ্জার একজন শিশু ভ্যান চালক ইব্রাহিম কে বলে ওই দোকানে কিছু বস্তা আছে সেগুলো ধরতে হলে তোমার সহযোগিতার প্রয়োজন তখন ভ্যান চালক শিশু ইব্রাহিম ওনার সাথে যেতে সম্মতি প্রকাশ করে ওনার সাথে চলে যায়। বস্তা সল্প পরিমাণের হওয়াই তখন ভ্যান চালককে ভ্যানে ফিরে যেতে বলে ওই প্রতারক। ভ্যানের কাছে ফিরে এসে ভ্যান ও প্যাসেঞ্জার কাউকে দেখতে না পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে শিশু ইব্রাহিম। ইব্রাহিমের সাথে বস্তা নিতে যাওয়া অন্য প্রতার সেও উধাও হয়ে যাও।

ভ্যান হারানোর জন্য শিশু ইব্রাহিমকে সাথে নিয়ে তার বাবা শাহাজাহান আলী চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি হারানো মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

দিনে-দুপুরে পাখি ভ্যান চুরি : দিশেহারা শিশু ভ্যান চালক

আপডেট সময় : ০৫:৩৪:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুলাই ২০২৩
চুয়াডাঙ্গায় রেল বাজার হতে দিনে-দুপুরে ভ্যান চালককে প্রতারণা করে চুরি করে নিয়েছে আয়ের শেষ সম্বল পাখি ভ্যান।

আজ শনিবার সকাল নয়টার সময় চুয়াডাঙ্গার রেল বাজারে এ ঘটনা ঘটে। পাখি ভ্যান চুরি হওয়াই কান্নায় ভেঙে পড়ে চুয়াডাঙ্গার ভ্যান চালক শিশু ইব্রাহিম।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার শ্রিকোল বোয়ালিয়া দিনমজুর শাহাজাহান আলির ছেলে শিশু ইব্রাহিম। শিশু ইব্রাহীমের বাবা অসুস্থ থাকার কারণে ইব্রাহিম শনিবার ভ্যান নিয়ে বাহির হয় কিছু টাকার আশায়। সংসারের অভাবে কারণে ইব্রাহিমের বাবা শাহাজান আলী ৩০ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে পাখি ভ্যান ক্রয় করে। গত কয়েক মাস আগে পাখি ভ্যান কিনে ইব্রাহিমের বাবা।

সে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ৫ থেকে ৭ শত টাকা আয় করে পরিবারের অভাব ঘুচাত পরিবারের শেষ সম্বল এই পাখি ভ্যান।

আজ শনিবার সকাল ৯টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদরের ডিঙ্গেদহ বাজারে এজেন্ট ব্যাংকিং সেবা ইসলামিক ব্যাংকের সামনে থেকে উঠে বসুভান্ডারদহ ও পরে রেল বাজার যাওয়ার জন্য ২ জন অজ্ঞাত ব্যক্তি ভাড়া হিসেবে ৩ শত টাকা চুক্তি করে।

ভ্যান চালক শিশু ইব্রাহীম ডিঙ্গেদহ থেকে হয়ে সকাল সাড়ে দশটার দিকে চুয়াডাঙ্গা রেল বাজারে পৌঁছালে প্যাসেঞ্জার একজন শিশু ভ্যান চালক ইব্রাহিম কে বলে ওই দোকানে কিছু বস্তা আছে সেগুলো ধরতে হলে তোমার সহযোগিতার প্রয়োজন তখন ভ্যান চালক শিশু ইব্রাহিম ওনার সাথে যেতে সম্মতি প্রকাশ করে ওনার সাথে চলে যায়। বস্তা সল্প পরিমাণের হওয়াই তখন ভ্যান চালককে ভ্যানে ফিরে যেতে বলে ওই প্রতারক। ভ্যানের কাছে ফিরে এসে ভ্যান ও প্যাসেঞ্জার কাউকে দেখতে না পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে শিশু ইব্রাহিম। ইব্রাহিমের সাথে বস্তা নিতে যাওয়া অন্য প্রতার সেও উধাও হয়ে যাও।

ভ্যান হারানোর জন্য শিশু ইব্রাহিমকে সাথে নিয়ে তার বাবা শাহাজাহান আলী চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি হারানো মামলা দায়ের করা হয়েছে।