ঢাকা ০৭:২২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রেমে’র ফাঁদে ফেলে ৫০ লাখ টাকা আত্মসাৎ আটক-২

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৪:৫৫:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০২৪ ২৮৫ বার পড়া হয়েছে

সাইদ হাসান বাপ্পি নামের এক কোরিয়া প্রবাসীকে ফেসবুকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে অর্ধ কোটিরও বেশি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এক প্রতারক চক্র।
সাইদ হাসান বাপ্পি ২০১৮ সালে কোরিয়া যায় এরপরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কনিকা নামের এক নারীর সাথে পরিচয় হয়। পরে তার সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। এরপর থেকেই বিয়ে করা, অসুস্থতা সহ বিভিন্ন অজুহাতে হাতিয়ে নিয়েছে প্রায় ৬০ লক্ষ টাকা। এই প্রতারক চক্রের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তহমিনা আক্তার(২৭) ও তার স্বামী আজাদকে(৪২) আটক করেছে মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

বুধবার মধ্যরাতে বগুড়া শাজাহানপুর উপজেলার সুজাবাদ মধ্যপাড়া থেকে তাদের দুজনকে আটক করা হয়।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল আলম। তিনি বলেন সাইদ হাসান বাপ্পি নামের এক ভদ্রলোক করিয়া প্রবাসী, তিনি ২০১৮ সালে কোরিয়া যায়। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কনিকা পরিচয়দানকারী এক নারীর সাথে তার পরিচয় হয়। দীর্ঘদিন কথা বলার ফলে তাদের ভিতরে ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়, এই ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের সুবাদে তাকে বিবাহ করবে বলে বিভিন্নভাবে প্রতারণা করে তার কাছ থেকে প্রায়ই ৬০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে ডকুমেন্টস পেয়েছি।

তিনি আরো বলেন কনিকা পরিচয়দানকারী ওই নারীর আসল পরিচয় জানা গিয়েছে তার নাম তহমিনা আক্তার তার স্বামী আজাদ উভয়ের বাসা বগুড়া জেলার শাজাহানপুর উপজেলার সুজাবাদ মধ্যপাড়ায়। স্বামী স্ত্রী এবং স্থানীয় এক দোকানদার রবিউল ইসলাম নামের এক ব্যক্তির সহযোগিতায় প্রায় ৬০ লক্ষ টাকার অধিক হাতিয়ে নেয় ওই করিয়া প্রবাসীর কাছ থেকে।

এই ঘটনায় করিয়া প্রবাসী সাঈদ হাসান বাপ্পির ভগ্নিপতি মেহেরপুর সদর উপজেলার বেলতলা পাড়া গ্রামের মোহাম্মদ আইয়ুব আলীর ছেলে সোহেল রানা বাদী হয়ে মেহেরপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ওই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে তহমিনা আক্তার ও তার স্বামী আজাদকে আটক করে মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।
তাদের দুজনকে কোর্টে প্রেরণ করার প্রস্তুতি চলমান রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

প্রেমে’র ফাঁদে ফেলে ৫০ লাখ টাকা আত্মসাৎ আটক-২

আপডেট সময় : ০৪:৫৫:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০২৪

সাইদ হাসান বাপ্পি নামের এক কোরিয়া প্রবাসীকে ফেসবুকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে অর্ধ কোটিরও বেশি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এক প্রতারক চক্র।
সাইদ হাসান বাপ্পি ২০১৮ সালে কোরিয়া যায় এরপরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কনিকা নামের এক নারীর সাথে পরিচয় হয়। পরে তার সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। এরপর থেকেই বিয়ে করা, অসুস্থতা সহ বিভিন্ন অজুহাতে হাতিয়ে নিয়েছে প্রায় ৬০ লক্ষ টাকা। এই প্রতারক চক্রের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তহমিনা আক্তার(২৭) ও তার স্বামী আজাদকে(৪২) আটক করেছে মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

বুধবার মধ্যরাতে বগুড়া শাজাহানপুর উপজেলার সুজাবাদ মধ্যপাড়া থেকে তাদের দুজনকে আটক করা হয়।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল আলম। তিনি বলেন সাইদ হাসান বাপ্পি নামের এক ভদ্রলোক করিয়া প্রবাসী, তিনি ২০১৮ সালে কোরিয়া যায়। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কনিকা পরিচয়দানকারী এক নারীর সাথে তার পরিচয় হয়। দীর্ঘদিন কথা বলার ফলে তাদের ভিতরে ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়, এই ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের সুবাদে তাকে বিবাহ করবে বলে বিভিন্নভাবে প্রতারণা করে তার কাছ থেকে প্রায়ই ৬০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে ডকুমেন্টস পেয়েছি।

তিনি আরো বলেন কনিকা পরিচয়দানকারী ওই নারীর আসল পরিচয় জানা গিয়েছে তার নাম তহমিনা আক্তার তার স্বামী আজাদ উভয়ের বাসা বগুড়া জেলার শাজাহানপুর উপজেলার সুজাবাদ মধ্যপাড়ায়। স্বামী স্ত্রী এবং স্থানীয় এক দোকানদার রবিউল ইসলাম নামের এক ব্যক্তির সহযোগিতায় প্রায় ৬০ লক্ষ টাকার অধিক হাতিয়ে নেয় ওই করিয়া প্রবাসীর কাছ থেকে।

এই ঘটনায় করিয়া প্রবাসী সাঈদ হাসান বাপ্পির ভগ্নিপতি মেহেরপুর সদর উপজেলার বেলতলা পাড়া গ্রামের মোহাম্মদ আইয়ুব আলীর ছেলে সোহেল রানা বাদী হয়ে মেহেরপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ওই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে তহমিনা আক্তার ও তার স্বামী আজাদকে আটক করে মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।
তাদের দুজনকে কোর্টে প্রেরণ করার প্রস্তুতি চলমান রয়েছে।