ঢাকা ১০:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেহেরপুরের গাংনীতে ওষধ ভেবে বিষপান

নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১১:১৮:১০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪ ৭২ বার পড়া হয়েছে

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার জালশুকা গ্রামে ওষধ ভেবে বিষপান করে রহিমা খাতুন(৮০) নামের নারী এখন মৃতু শয্যায়।

রহিমা খাতুন গাংনী উপজেলার জালশুকা গ্রামের মাঝপাড়া এলাকার সলেমান মন্ডলের স্ত্রী। আজ বুধবার (৩ জুলাই) দুপুরের দিকে নিজ বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

রহিমা খাতুনের ছেলে আব্দুর রহসান জানান, প্রায় ৭/৮ মাস পূর্বে আমার মা চোখের সমস্যা নিয়ে ওষধ খাচ্ছেন। সে ইদানীং
চোখে দেখতে পাইনা। আজকে পরিবারের লোকজন অন্যকাজে ব্যাস্ত ছিলেন। এসময় সে ওষধ ভেবে ঘরে থাকা বিষপান খেয়ে ফেলেন। পরে তাকে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়।

গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেের জরুরি বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল মারুফ বলেন, তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

মেহেরপুরের গাংনীতে ওষধ ভেবে বিষপান

আপডেট সময় : ১১:১৮:১০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার জালশুকা গ্রামে ওষধ ভেবে বিষপান করে রহিমা খাতুন(৮০) নামের নারী এখন মৃতু শয্যায়।

রহিমা খাতুন গাংনী উপজেলার জালশুকা গ্রামের মাঝপাড়া এলাকার সলেমান মন্ডলের স্ত্রী। আজ বুধবার (৩ জুলাই) দুপুরের দিকে নিজ বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

রহিমা খাতুনের ছেলে আব্দুর রহসান জানান, প্রায় ৭/৮ মাস পূর্বে আমার মা চোখের সমস্যা নিয়ে ওষধ খাচ্ছেন। সে ইদানীং
চোখে দেখতে পাইনা। আজকে পরিবারের লোকজন অন্যকাজে ব্যাস্ত ছিলেন। এসময় সে ওষধ ভেবে ঘরে থাকা বিষপান খেয়ে ফেলেন। পরে তাকে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়।

গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেের জরুরি বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল মারুফ বলেন, তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।