ঢাকা ০৯:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেহেরপুরের প্রবাস ফেরত যুবক হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • আপডেট সময় : ০৯:৩১:২৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩ ৩১৯ বার পড়া হয়েছে

প্রবাস ফেরত যুবক শরিফুল ইসলাম (৪০) কে কুপিয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি  এনামুল হক খোকনকে ৮  দিন পর চুয়াডাঙ্গা থেকে গ্রেফতার করছে মেহেরপুর সদর থানা পুলিশ।

শনিবার দিবাগত রাতে চুয়াডাঙ্গা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক একরামুল হক খোকন সদর উপজেলার রায়পুর গ্রামের আকছেদ আলির ছেলে।

গোপন সূত্রের খবর পেয়ে মেহেরপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার( সার্কেল) আজমল হোসেনের নেতৃত্বে, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, ইন্সপেক্টর অপারেশন মেজবাউর রহমান সহ সঙ্গীও ফোর্স নিয়ে চুয়াডাঙ্গা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করেন।

উল্লেখ্য, গত ২০ এপ্রিল বিকেলের দিকে মেহেরপুর সদর উপজেলার হাতী ভাঙ্গার মোড় এলাকায় শরিফুল ইসলামকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। শরিফুল ইসলাম মেহেরপুর সদর উপজেলার রায়পুর গ্রামের মোঃ বাবর আলীর ছেলে। প্রায় তিন বছর পূর্বে শরিফুল ইসলাম দুবাই থাকার সময় রায়পুর গ্রামের আকছেদ আলীর ছেলে এনামুল হককে বিদেশে পাঠাবার নাম করে মোটা অংকের টাকা গ্রহণ করে।

এদিকে প্রায় দেড় মাস পূর্বে শরিফুল দুবাই থেকে দেশে ফেরার পরও একরামুলকে বিদেশ পাঠাতে ব্যর্থ হয়।ওই সময় থেকে একরামুল তার পাওনা টাকা ফেরত না পেয়ে ২০ এপ্রিল দুপুরের দিকে কৌশলে শরিফুল ইসলামকে হাতিভাঙার মোড় এলাকায় ডেকে নেন। সেখানে তাকে ধারালো হেসো দিয়ে কুপিয়ে যখম করে।

স্থানীয়রা তাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে মেহেরপুর-২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।পরে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।নিহত শরিফুলের চাচা আমদহ ইউনিয়নের সাবেক সদস্য কাবুল আলী বাদী হয়ে মেহেরপুর সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

মেহেরপুরের প্রবাস ফেরত যুবক হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৯:৩১:২৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩

প্রবাস ফেরত যুবক শরিফুল ইসলাম (৪০) কে কুপিয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি  এনামুল হক খোকনকে ৮  দিন পর চুয়াডাঙ্গা থেকে গ্রেফতার করছে মেহেরপুর সদর থানা পুলিশ।

শনিবার দিবাগত রাতে চুয়াডাঙ্গা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক একরামুল হক খোকন সদর উপজেলার রায়পুর গ্রামের আকছেদ আলির ছেলে।

গোপন সূত্রের খবর পেয়ে মেহেরপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার( সার্কেল) আজমল হোসেনের নেতৃত্বে, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, ইন্সপেক্টর অপারেশন মেজবাউর রহমান সহ সঙ্গীও ফোর্স নিয়ে চুয়াডাঙ্গা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করেন।

উল্লেখ্য, গত ২০ এপ্রিল বিকেলের দিকে মেহেরপুর সদর উপজেলার হাতী ভাঙ্গার মোড় এলাকায় শরিফুল ইসলামকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। শরিফুল ইসলাম মেহেরপুর সদর উপজেলার রায়পুর গ্রামের মোঃ বাবর আলীর ছেলে। প্রায় তিন বছর পূর্বে শরিফুল ইসলাম দুবাই থাকার সময় রায়পুর গ্রামের আকছেদ আলীর ছেলে এনামুল হককে বিদেশে পাঠাবার নাম করে মোটা অংকের টাকা গ্রহণ করে।

এদিকে প্রায় দেড় মাস পূর্বে শরিফুল দুবাই থেকে দেশে ফেরার পরও একরামুলকে বিদেশ পাঠাতে ব্যর্থ হয়।ওই সময় থেকে একরামুল তার পাওনা টাকা ফেরত না পেয়ে ২০ এপ্রিল দুপুরের দিকে কৌশলে শরিফুল ইসলামকে হাতিভাঙার মোড় এলাকায় ডেকে নেন। সেখানে তাকে ধারালো হেসো দিয়ে কুপিয়ে যখম করে।

স্থানীয়রা তাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে মেহেরপুর-২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।পরে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।নিহত শরিফুলের চাচা আমদহ ইউনিয়নের সাবেক সদস্য কাবুল আলী বাদী হয়ে মেহেরপুর সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।