ঢাকা ০৯:০২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেহেরপুরে তালাক প্রাপ্ত স্ত্রীর সাথে ঝগড়া করে আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৫:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ জুন ২০২৩ ৪২০ বার পড়া হয়েছে

মেহেরপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয় পাড়ায় শান্তনু (৩২) নামের এক ব্যক্তি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা । শান্তনু পার্শ্ববর্তী ভারতের নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগরের গোপীনাথের ছেলে।

মঙ্গলবার ভোরের দিকে মেহেরপুর শহরের এসপি অফিস পাড়ার গোলাম মোস্তফার ভাড়া বাড়িতে এসে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠাই।

জানা গেছে শান্তনু প্রায় ৭ বছর পূর্বে ভারত থেকে মেহেরপুর এসে মেহেরপুর শহরে থানাপাড়ার কাওসার আলির মেয়ে রুপালি খাতুনের সাথে বিয়ে করেন।  বিয়ের প্রায় ৬ মাস পর স্বামী স্ত্রীর মধ্যে বনি বনা হয় তাদের মধ্যে বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটে।

এদিকে সোমবার দিবাগত রাতে তার তালাক প্রাপ্ত স্ত্রী রুপালি খাতুনের সঙ্গে মোবাইলের ঝগড়া হয়। তারপর পরপরই সে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

আজ মঙ্গলবার সকালে মেহেরপুর শহরের কলেজ মোড় এলাকার ইয়ারুল হোটেলের কর্মচারী মিন্টু তার সহকর্মী শান্তনুকে খাবার দিতে এসে ঘরে গলায় গামছা পেঁচিয়ে ঘরের ছাদে ফ্যানের আংটার সাথে ঝুলে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে তার লাশ নামিয়ে মর্গে প্রেরণ করে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

মেহেরপুরে তালাক প্রাপ্ত স্ত্রীর সাথে ঝগড়া করে আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ০৪:৪৫:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ জুন ২০২৩

মেহেরপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয় পাড়ায় শান্তনু (৩২) নামের এক ব্যক্তি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা । শান্তনু পার্শ্ববর্তী ভারতের নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগরের গোপীনাথের ছেলে।

মঙ্গলবার ভোরের দিকে মেহেরপুর শহরের এসপি অফিস পাড়ার গোলাম মোস্তফার ভাড়া বাড়িতে এসে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠাই।

জানা গেছে শান্তনু প্রায় ৭ বছর পূর্বে ভারত থেকে মেহেরপুর এসে মেহেরপুর শহরে থানাপাড়ার কাওসার আলির মেয়ে রুপালি খাতুনের সাথে বিয়ে করেন।  বিয়ের প্রায় ৬ মাস পর স্বামী স্ত্রীর মধ্যে বনি বনা হয় তাদের মধ্যে বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটে।

এদিকে সোমবার দিবাগত রাতে তার তালাক প্রাপ্ত স্ত্রী রুপালি খাতুনের সঙ্গে মোবাইলের ঝগড়া হয়। তারপর পরপরই সে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

আজ মঙ্গলবার সকালে মেহেরপুর শহরের কলেজ মোড় এলাকার ইয়ারুল হোটেলের কর্মচারী মিন্টু তার সহকর্মী শান্তনুকে খাবার দিতে এসে ঘরে গলায় গামছা পেঁচিয়ে ঘরের ছাদে ফ্যানের আংটার সাথে ঝুলে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে তার লাশ নামিয়ে মর্গে প্রেরণ করে।