ঢাকা ০৭:৫০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেহেরপুরে মন্দির নির্মাণের নাম করে চাঁদা আদায় প্রতারক আটক-২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • আপডেট সময় : ০৮:২৪:১৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অগাস্ট ২০২৩ ৮৯৪ বার পড়া হয়েছে
মন্দির নির্মাণের নাম করে চাঁদা আদায় এবং বিভিন্ন রোগবালার সারিয়ে দেয়ার নামে তাবিজ বিক্রি করার অভিযোগে মোঃ সাকিব হোসেন ও নজরুল ইসলাম নামের প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে আটক করে পুলিশের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে মেহেরপুর শহরের খাঁপাড়া এলাকায় প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে আটক করা হয়। আটক নজরুল ইসলাম ঝালকাঠি জেলর কৃষ্ণকান্দি গ্রামের আব্দুল হালিমের ছেলে এবং সাকিব হোসেন পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার দাস পাড়া এলাকার ময়জদ্দিন হাওলাদারের ছেলে।

এলাকাবাসী জানায় আটক ব্যক্তিদ্বয় মুসলিম হওয়া সত্ত্বেও তারা চুয়াডাঙ্গায় মন্দির নির্মাণ করছে এ কথা বলে বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাঁদা আদায় শুরু করে। আবার কারো কারো বাড়ি গিয়ে বিভিন্ন রোগ সারিয়ে দেওয়ার কথা বলে তাবিজ বিক্রি করতে থাকে। এ সময় এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে তাদেরকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

মেহেরপুর পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ আব্দুল্লাহেল হেল বাপ্পি বলেন, এলাকার লোকজন আমাকে ফোন দিয়ে জানায় দুইজন প্রতারককে আটক করা হয়েছে। খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশের কাছে দুজনকে হস্তান্তর করেছি।

মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, দুইজন প্রতারককে এলাকাবাসী আটক করেছে এমন খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠিয়ে তাদেরকে থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

মেহেরপুরে মন্দির নির্মাণের নাম করে চাঁদা আদায় প্রতারক আটক-২

আপডেট সময় : ০৮:২৪:১৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অগাস্ট ২০২৩
মন্দির নির্মাণের নাম করে চাঁদা আদায় এবং বিভিন্ন রোগবালার সারিয়ে দেয়ার নামে তাবিজ বিক্রি করার অভিযোগে মোঃ সাকিব হোসেন ও নজরুল ইসলাম নামের প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে আটক করে পুলিশের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে মেহেরপুর শহরের খাঁপাড়া এলাকায় প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে আটক করা হয়। আটক নজরুল ইসলাম ঝালকাঠি জেলর কৃষ্ণকান্দি গ্রামের আব্দুল হালিমের ছেলে এবং সাকিব হোসেন পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার দাস পাড়া এলাকার ময়জদ্দিন হাওলাদারের ছেলে।

এলাকাবাসী জানায় আটক ব্যক্তিদ্বয় মুসলিম হওয়া সত্ত্বেও তারা চুয়াডাঙ্গায় মন্দির নির্মাণ করছে এ কথা বলে বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাঁদা আদায় শুরু করে। আবার কারো কারো বাড়ি গিয়ে বিভিন্ন রোগ সারিয়ে দেওয়ার কথা বলে তাবিজ বিক্রি করতে থাকে। এ সময় এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে তাদেরকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

মেহেরপুর পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ আব্দুল্লাহেল হেল বাপ্পি বলেন, এলাকার লোকজন আমাকে ফোন দিয়ে জানায় দুইজন প্রতারককে আটক করা হয়েছে। খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশের কাছে দুজনকে হস্তান্তর করেছি।

মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, দুইজন প্রতারককে এলাকাবাসী আটক করেছে এমন খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠিয়ে তাদেরকে থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।