ঢাকা ০৮:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে দুই’পা ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্ত’রা

নিউজ ডেস্ক:
  • আপডেট সময় : ০৮:১৭:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪ ১৯৯ বার পড়া হয়েছে

মাদক সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধের জের ধরে মিকাইল নামক এক যুবককে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে দুই পা ভেঙে দিয়েছে।

বুধবার রাত দশটার দিকে মেহেরপুর সদর উপজেলার আমঝুপি কুঠিবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মিকাইল মেহেরপুর শহরের মিয়া পাড়ার আব্দুল্লাহ ছেলে।

জানা গেছে ঘটনার সময় আমঝুপির বাবু নামের এক ব্যক্তি জরুরী কথা আছে বলে মোবাইল ফোন করে মিকাইলকে আমঝুপি কুঠিবাড়ি এলাকায় ডেকে নেয়। মোবাইল ফোন পেয়ে রাত ১০ টার দিকে আমঝুপি কুঠিবাড়ি এলাকায় পৌঁছায়।

এ সময় মিকাইল কথা বলার এক পর্যায়ে মিকাইলের উপর হামলা চালানো হয়। এ সময় রড দিয়ে বিকালে দুই পা ভেঙে দেয়। খবর পেয়ে মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর সদস্যরা মিকাইলকে উদ্ধার করে মেহেরপুর-২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নেয়।

আহত মিকাইলের স্ত্রী কোহিনুর বেগম জানান, রাত সাড়ে নটার দিকে বাবু তার স্বামীর সাথে জরুরী কাজ আছে বলে মোবাইল ফোনে ডেকে নেয়। এরপরে শুনতে পাই তার উপরে হামলা চালানো হয়েছে।

মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার শামীম হোসেন জানান, খুলনা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স থেকে মেহেরপুর অফিসে ফোন করার পর আমরা আমঝুপি কুঠিবাড়ি এলাকা থেকে আহত অবস্থায় মিকাইলকে উদ্ধার করি। তিনি জানান, যে মোবাইল নাম্বার থেকে ফোন করা হয়েছিল পরে সেই ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ কনি মিয়া জানান, কি কারনে তার উপরে হামলা হয়েছে সেটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে দুই’পা ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্ত’রা

আপডেট সময় : ০৮:১৭:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪

মাদক সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধের জের ধরে মিকাইল নামক এক যুবককে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে দুই পা ভেঙে দিয়েছে।

বুধবার রাত দশটার দিকে মেহেরপুর সদর উপজেলার আমঝুপি কুঠিবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মিকাইল মেহেরপুর শহরের মিয়া পাড়ার আব্দুল্লাহ ছেলে।

জানা গেছে ঘটনার সময় আমঝুপির বাবু নামের এক ব্যক্তি জরুরী কথা আছে বলে মোবাইল ফোন করে মিকাইলকে আমঝুপি কুঠিবাড়ি এলাকায় ডেকে নেয়। মোবাইল ফোন পেয়ে রাত ১০ টার দিকে আমঝুপি কুঠিবাড়ি এলাকায় পৌঁছায়।

এ সময় মিকাইল কথা বলার এক পর্যায়ে মিকাইলের উপর হামলা চালানো হয়। এ সময় রড দিয়ে বিকালে দুই পা ভেঙে দেয়। খবর পেয়ে মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর সদস্যরা মিকাইলকে উদ্ধার করে মেহেরপুর-২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নেয়।

আহত মিকাইলের স্ত্রী কোহিনুর বেগম জানান, রাত সাড়ে নটার দিকে বাবু তার স্বামীর সাথে জরুরী কাজ আছে বলে মোবাইল ফোনে ডেকে নেয়। এরপরে শুনতে পাই তার উপরে হামলা চালানো হয়েছে।

মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার শামীম হোসেন জানান, খুলনা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স থেকে মেহেরপুর অফিসে ফোন করার পর আমরা আমঝুপি কুঠিবাড়ি এলাকা থেকে আহত অবস্থায় মিকাইলকে উদ্ধার করি। তিনি জানান, যে মোবাইল নাম্বার থেকে ফোন করা হয়েছিল পরে সেই ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ কনি মিয়া জানান, কি কারনে তার উপরে হামলা হয়েছে সেটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।